এইচ টি ইমাম হচ্ছেন রবীন্দ্রনাথের ‘চলতি হাওয়ার পন্থী’ : রিজভী

স্টাফ করেসপনডেন্ট,

ঢাকাঃ এইচ টি ইমাম হচ্ছেন রবীন্দ্রনাথের ‘চলতি হাওয়ার পন্থী’। কারণ তিনি হাওয়ায় গা ভাসিয়ে চলেন। যখন যেদিকে সুযোগ পান, তিনি সেদিকে গিয়ে সুবিধা ভোগ করেন। তিনি যেনো রবীন্দ্রনাথের চলতি হাওয়ার পন্থী।’

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমামকে নিয়ে এমনটাই মন্তব্য করেছেন বিএনপি সিনিয়র যুগ্ন-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রবিবার (৮ জুলাই) সকালে বিএনপির নয়াপল্টন কর্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম ভারত সফরে সেখানকার শীর্ষস্থানীয় ‘থিংক ট্যাংক’ এর আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিএনপিকে চীন এবং পাকিস্থানপন্থী আখ্যা দেয়ার প্রেক্ষিতে রুহুল কবির রিজভী এমন্তব্য করেন।

 

এইট টি ইমামের কড়া সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ‘মরহুম জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের রক্তাক্ত লাশ ডিঙিয়ে আওয়ামী লীগের মন্ত্রীসভায় শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেছিলেন এই এইচ টি ইমাম। যখন যে হাওয়া বয়ে যায় সেই হাওয়ার সাথেই গা ভাসিয়ে দেন এই এইচ টি ইমাম সাহেবরা। ১৫ আগষ্টের মর্মস্পর্শী স্বপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকান্ডের যদি বিন্দুমাত্র বিচলিত ও মর্মাহত হতেন এইচ টি ইমাম তাহলে লাশ ডিঙ্গানো ঐ মন্ত্রীসভার শপথ পাঠের অনুষ্ঠান পরিচালনা করতেন না। আসলে এই এইচ টি ইমাম’রা কখনোই আয়নায় নিজের চেহারা দেখেন না। এইচ টি ইমামদের ভূমিকা মিরন ও ঘষেটি বেগমের মতো বলেও মন্তব্য রিজভীর।

ওবায়দুল কাদেররা অবৈধ ক্ষমতার অহংকারে হিতাহিত জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়েছেন/রিজভী

পুলিশ নিজেরাই নৌকায় সীল মারছে : রিজভী

রিজভী আরও বলেন, ‘এইচ টি ইমাম এর উদ্ভট বেহায়াপনায় বাংলাদেশীরা হতবাক ও স্তম্ভিত। জনবিচ্ছিন্ন আওয়ামী সরকারকে পূনরায় ক্ষমতায় রাখতে  বিভিন্ন নীতি নির্ধারকদের কাছে নতজানু হয়ে লেজ নাড়িয়ে ভারতীয় কৃপা আদায়ের জন্য এইচ টি ইমামের মতো আওয়ামী মন্ত্রী ও নেতারা এমন ন্যাক্কারজনক দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করছেন।’

কর্মসূচি প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, ‘আগামীকাল সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৮ টা পর্যন্ত আমরা অনশন কর্মসূচি পালন করবো। পূর্বনির্ধারিত স্থান ইঞ্জিনিয়ারিং ইনিস্টিটিউট অথবা মহানগর নাট্যমঞ্চেই অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানান রুহুল কবির রিজভী।

এসময় রিজভী বলেন, ‘আমাদের সমাবেশের অনুমতি দেয়নি পুলিশ প্রশাসন। কারণ আমরা সমাবেশ করলে জনসমুদ্রে পরিণত হয়। আর সরকার সেই জনগণকে ভয় পায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে অনশন কর্মসূচির সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। এখন যদি সরকার কর্মসূচি পালনে বাধা দেয়, তাহলে জনগন নিশ্চিত হয়ে যাবে দেশে গণতন্ত্র নাই।’

বানিমি/আজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *